সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে চীনের ডংজিন গ্রুপ

 প্রকাশ: ০৪ জুলাই ২০২২, ০৬:১৬ অপরাহ্ন   |   জেলার খবর


এম আব্দুল করিম, সিলেট ব্যুরোঃ

  প্রথম বন্যার ক্ষত শোকাতে না শোকাতেই দ্বিতীয় দফা বন্যার সম্মুখীন সিলেট ও সুনামগঞ্জের লক্ষ লক্ষ মানুষ। অতিরিক্ত বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে অকাল বন্যায় পানিবন্দি হয়ে পড়েন সিলেট ও সুনামগঞ্জের কয়েক লক্ষ মানুষ। বানভাসি মানুষের সাহায্যের জন্য সরকারি ও বেসরকারি ভাবে শুরু হয় ত্রাণ তৎপরতা। তারই ধারাবাহিতায় চীনের ডংজিন গ্রুপের অর্থায়নে ও সিলেট সদর ক্যাম্প সেনাবাহিনী'র সার্ভিক সহযোগীতায় গত ৩০ জুন ২০২২ ইং বেলা ১১ ঘটিকা থেকে সিলেট সদর উপজেলাধীন ২ নং হাটখোলা ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের বন্যাকবলিত গ্রামের প্রায় ৭০০ পরিবারের মধ্যে "ডংজিন গ্রুপের" পক্ষ থেকে ত্রাণ উপহার বিতরণ করা হয়।



এ সময় উপস্থিত ছিলেন চীনের ডংজিন গ্রুপ (ডিজেডিসি ব্যাটারি ) বাংলাদেশের এমডি মি. লু পিন, হেড অব এক্সেসরিজ ডিপার্টমেন্ট মি. ওয়ান লিয়াং, ডেপুটি মার্কেটিং ডিরেক্টর মি. নাইমুল, ডংজিন গ্রুপের এক্সিকিউটিভ, ৩৪ ইনফেন্ট্রি ব্রিগেডের সেনা সদস্য ও হাটখোলা ইউপি'র বিভিন্ন ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার,গ্রামের মুরুব্বি এবং সাংবাদিক সহ এলাকার সেচ্ছাসেবী যুবকবৃন্দ।



ডংজিন গ্রুপের ডেপুটি মার্কেটিং ডিরেক্টর মি.নাইমুল উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান যে,সিলেট ও সুনামগঞ্জের সাম্প্রতিক ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে সামান্য উপহার নিয়ে দাঁড়াতে পারায় ভালো লাগছে এবং আমরা আশা করি বাংলাদেশে চীনের আরো যেসব কোম্পানি রয়েছে সেগুলোও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াবে। উল্লেখ্য যে,ঐ দিন ৩০ জুন ২০২২ ইং ডংজিন গ্রুপের আরো ৭০০ প্যাকেট   ত্রাণ উপহার সুনামগঞ্জের   দিরাই উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য সেখানকার দায়ীত্বরত সেনা সদস্য ও স্থানীয় ইউপি সদস্যদের উপস্থিতিতে বিতরণ করা হয়, তাছাড়া একই দিনে ডংজিন গ্রুপের মার্কেটিং ডিরেক্টর মি,উইলি'র নেতৃত্বে আরেকটি দল কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলায় আরো ৭০০ প্যাকেট ত্রাণ উপহার বিতরন করেন৷

জেলার খবর এর আরও খবর: