করোনা টিকা অ্যাস্ট্রাজেনেকার বিরুদ্ধে ইইউ’র মামলা প্রক্রিয়া শুরু।

 প্রকাশ: ২৭ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৪১ পূর্বাহ্ন   |   আন্তর্জাতিক


ডেস্ক রিপোর্ট, 

করোনাভাইরাসের টিকা সরবরাহের প্রতিশ্রুত লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না করায় ব্রিটিশ-সুইডিশ কোম্পানি অ্যাস্ট্রাজেনেকার বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে ইউরোপীয় কমিশন।


ইউরোপীয় ইউনিয়নের স্বাস্থ্য বিষয়ক কমিশনার স্টেলা সোমবার টুইটারে বলেন, “আমাদের অগ্রাধিকার হল ইইউ দেশগুলোর মানুষের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার জন্য যথাযথভাবে কোভিড-১৯ টিকা সরবরাহ নিশ্চিত করা।”


“আর এ কারণেই ইউরোপীয় কমিশন একযোগে সব সদস্যদেশের সঙ্গে মিলে অ্যাস্ট্রেজেনেকার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।”


ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) একজন মুখপাত্র এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, “ইউরোপীয় কমিশন গত শুক্রবার অ্যাস্ট্রাজেনেকার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে। ইইউ এর ২৭ টি সদস্যদেশও তাতে সমর্থন দিয়েছে।”


এই পদক্ষেপ নেওয়ার কারণ ব্যাখ্যায় মুখপাত্র বলেন, “টিকা নিয়ে চুক্তির কিছু শর্ত মানা হয়নি, এমনকী টিকা সময়মত সরবরাহ করার জন্য নির্ভরযোগ্য কোনও পরিকল্পনাও কোম্পানিটি নেয়নি।” চুক্তি অনুযায়ী এই মামলা নিষ্পত্তি হওয়ার কথা রয়েছে বেলজিয়াম আদালতে।


ইইউ’র এই আইনানুগ ব্যবস্থার জবাবে অ্যাস্ট্রাজেনেকা আদালতে শক্তভাবে আত্মপক্ষ সমর্থনে লড়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছে।



সোমবার এক বিবৃতিতে অ্যাস্ট্রাজেনেকা বলেছে, তারা ইউরোপীয় কমিশনের সঙ্গে টিকা ক্রয়ের অগ্রিম চুক্তি পুরোপুরিই মান্য করেছে। তাই কোনওরকম মামলা করার আইনি ভিত্তি নেই এবং বিরোধ যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মিটিয়ে ফেলাই ভাল।


অ্যাস্ট্রাজেনেকা গত বছরের ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের জুনের মধ্যে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে ৩০ কোটি ডোজ টিকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। চুক্তি অনুযায়ী এপ্রিল-জুন প্রান্তিকেই তাদের ১৮ কোটি ডোজ দেওয়ার কথা ছিল।


কিন্তু মার্চে এক বিবৃতিতে কোম্পানিটি জানায়, তারা এখন ইইউকে দেওয়া প্রতিশ্রুতির এক তৃতীয়াংশ টিকা সরবরাহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে।


অ্যাস্ট্রাজেনেকা তাদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী টিকা সরবরাহ না করায় ইউরোপে টিকাদান কর্মসূচি ব্যাহত হচ্ছে বলে ইইউ সদস্য রাষ্ট্রগুলো কয়েক মাস ধরেই অভিযোগ করে আসছিল। গত ২২ এপ্রিলে পলিটিকোতে প্রথম অ্যাস্ট্রাজেনেকার বিরুদ্ধে ইউরোপিয়ান কমিশনের মামলার প্রস্তুতির খবর আসে।


ওষুধনির্মাতা কোম্পানিটির সঙ্গে আলোচনায় সম্পৃক্ত ইইউ’র এক কর্মকর্তা ব্রাসেলস কর্তৃপক্ষ অ্যাস্ট্রাজেনেকার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে নিশ্চিত করেন।

আন্তর্জাতিক এর আরও খবর: