ছোট বড় ভাইদের উৎসর্গ করে কবিতা লেখলেন....সুলতানা রহমান

 প্রকাশ: ২২ জুলাই ২০২১, ০৯:০৯ পূর্বাহ্ন   |   সাহিত্য-সংস্কৃতি



উৎসর্গঃ- প্রাণাধিক প্রিয় (বড় & ছোট) ভাই কে

সুলতানা রহমানঃ

আমি একটা টলমল জলভরা নির্জন নদী।

বুকেতে আমার সহস্র ঢেউ,

দিয়েছি অপার...শুধু পাইনি কিছুই!

তবু বয়ে চলেছি নিখিলে নিরবধি!!


আমি একটা বুনো ফুল।

ফুটেছিলাম কোনো এক মায়া রাতে

মধু চাঁদের স্নিগ্ধ আলোয়

ছড়িয়েছি অসীমে অপার সৌন্দর্য 

বিলিয়েছি সব ছিল যা কিছু রুপ রস গন্ধ মোর

তবু নতুনের আগমনে কিছুকাল পরেই শুকিয়ে গিয়েছি

লুটিয়ে পড়েছি ধুলোয় হয়েছি নিমেষে নিঃশেষ।

আমিতো চেয়েছি এটা-ই

চেয়েছি কি কিচ্ছু আর?

কিবা আছে কার আমাকে দিবার!

ফুলেদের সৃষ্টি তাই বিধাতার-ই ভুল!!


আমি এক ডানা মেলা শঙ্খচিল।

প্রয়োজনে ভেঙেছি নখ, আঙুলের ডগায় বসিয়েছি নতুন নখর

পাখায় লাগিয়েছি নতুন পালক!

এক নতুন দিনের নতুন সূর্যের আলো ছিনিয়ে নিতে, 

আকাশের ওই নীল নীলিমায় ছুটে গিয়েছি দিকবিদিক।

আজ-কাল আমি উড়ে-উড়ে সর্বস্বান্ত বড়ক্লান্ত-ক্লান্ত অশেষ...

আমার ছুটে চলা পথের তবুও নেই কোনো শেষ।

আমি প্রবল ঝড় বৃষ্টিতে ডানা ভাঙা আহত এক পাখি

এখনো আমার আকাশে তোমাদের জন্য রামধনু টাই আঁকি।

আমি আজও দিগন্ত ছোঁবো বলে উড়ে বেড়াই দিগ্বিদিক

আমার ছুটে চলা তাই আসমুদ্র হিমাচল!

তবুও আমার ঠিকানা হয় জলাবদ্ধ স্রোতহীন ঐ এক টুকরো বিল!!


ভালোবাসায় জন্ম হয়েছিল আমার

আমি অন্যরকম এক ভালোবাসার স্ফটিকের গয়না বুকে নিয়ে জন্মেছি ভাই।

আমার জীবনের চারিদিক আজ সমুদ্র সফেন!

তবুও তোমাদের অন্তহীন ভালোবেসে যাই!!